1. admin@dailygoraishobvotha.com : dailygorai : Salim Takku
শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৩১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
যেভাবে মাদক ব্যবসাহী থেকে পাটিকাবাড়ি ইউপি’ চেয়ারম্যান সফর আলী- গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়া পাটিকাবাড়ি ইউপি’ চেয়ারম্যানের মাদক সেবনের ভিডিও ভাইরাল- গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়া মহিলাদলের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত-গড়াই সভ্যতা উৎসবমুখর পরিবেশে ১৪ ইউপি নির্বাচন সম্পন্ন- গড়াই সভ্যতা ঝিনাইদহে হিজড়া প্রার্থীর কাছে নৌকার ভরাডুবি- গড়াই সভ্যতা ঘরে বসে ৩০টি দেশে মোস্তাকিমের তথ্যপ্রযুক্তি সেবা- গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়ায় পদ্মা নদী থেকে অর্ধগলিত অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার-গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করতে পুলিশ নিরপেক্ষ ভাবে দায়িত্ব পালন করবে ..এসপি- গড়া ই সভ্যতা করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনকে ‘উদ্বেগজনক’ বললেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা- গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়া সদরের ১১ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন আগামী ৫ জানুয়ারী- গড়াই সভ্যতা

বকশিশ কম পেয়ে অক্সিজেন মাস্ক খুললেন ওয়ার্ডবয়, রোগীর মৃত্যু- গড়াই সভ্যতা

বগুড়া সংবাদদাতাঃ
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১০ নভেম্বর, ২০২১
  • ৪৫ বার পঠিত

বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে বকশিশের টাকা কম পেয়ে অক্সিজেন মাস্ক খুলে দেওয়ায় এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত ওয়ার্ডবয় পলাতক রয়েছেন।

নিহত ব্যক্তি গাইবান্ধার সাঘাটার শিয়ালকুন্ডি গ্রামের বিশু দাসের ছেলে বিকাশ চন্দ্র দাস (১৮)। তিনি সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত ছিলেন।

নিহত বিকাশ চন্দ্র দাসের চাচা শচীন চন্দ্র জানান, মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় বিকাশ সাঘাটায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হয়। এ সময় লোকজন তাকে উদ্ধার করে সাঘাটা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলে ডাক্তার। এরপর স্বজনরা শজিমেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যাওয়ার পর ওয়ার্ডবয় দুলু ট্রলি নিয়ে যায়।

তিনি জানান, ট্রলিতে বিকাশকে নামানোর পর জরুরি বিভাগে নিয়ে ভর্তি করা হয়। এরপর সেখানে তার মাথা ড্রেসিং করার পর অক্সিজেন মাস্ক লাগিয়ে ট্রলিতে করে সার্জারি বিভাগে নিয়ে যায়। ফ্লোরে বিকাশকে নামিয়ে দেওয়ার পর ওয়ার্ডবয় ট্রলিতে করে ওপরে নিয়ে আসার জন্য তাদের কাছে ২০০ টাকা বকশিশ চায়। কিন্তু ২০০ টাকার জায়গায় ১৫০ টাকা দেওয়ায় ওয়ার্ডবয় অক্সিজেন মাস্ক খুলে দেওয়ার কথা বলেন।

তিনি আরও জানান, ওয়ার্ড বয়কে তারা মাস্ক না খোলার অনুরোধ করেন। এরপরও ৫০ টাকা না পেয়ে তিনি টান দিয়ে রোগীর অক্সিজেন মাস্ক খুলে দেন। এর পরপরই বিকাশের শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। তখন তারা ওয়ার্ডবয়কে অক্সিজেন লাগিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করে কিন্তু ওয়ার্ডবয় ৫০ টাকা না দিলে লাগাবে না জানায়। পরে তারা নিজেরাই বিকাশের মুখে অক্সিজেন লাগিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। যখন তার ভাতিজার নাক দিয়ে শ্লেষ্মা বের হওয়া শুরু করে তখন ওয়ার্ডবয় পুনরায় অক্সিজেন লাগিয়ে দেয়। এরপর পর তার ভাতিজা আর শ্বাস নিচ্ছে না দেখে ওয়ার্ডবয় সেখান থেকে পালিয়ে যান। পরে ডাক্তার এসে রোগীকে মৃত ঘোষণা করেন।

ছিলিমপুর মেডিকেল ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই (উপ-পরিদর্শক) শামিম হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, হাসপাতালের এ ঘটনার পর থেকেই ওয়ার্ডবয় দুলু পালিয়ে গেছে। মরদেহ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। সূত্র: আরটিভি

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2019 daily gorai
Theme Customized BY LatestNews