1. admin@dailygoraishobvotha.com : dailygorai : Salim Takku
শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
যেভাবে মাদক ব্যবসাহী থেকে পাটিকাবাড়ি ইউপি’ চেয়ারম্যান সফর আলী- গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়া পাটিকাবাড়ি ইউপি’ চেয়ারম্যানের মাদক সেবনের ভিডিও ভাইরাল- গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়া মহিলাদলের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত-গড়াই সভ্যতা উৎসবমুখর পরিবেশে ১৪ ইউপি নির্বাচন সম্পন্ন- গড়াই সভ্যতা ঝিনাইদহে হিজড়া প্রার্থীর কাছে নৌকার ভরাডুবি- গড়াই সভ্যতা ঘরে বসে ৩০টি দেশে মোস্তাকিমের তথ্যপ্রযুক্তি সেবা- গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়ায় পদ্মা নদী থেকে অর্ধগলিত অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার-গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করতে পুলিশ নিরপেক্ষ ভাবে দায়িত্ব পালন করবে ..এসপি- গড়া ই সভ্যতা করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনকে ‘উদ্বেগজনক’ বললেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা- গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়া সদরের ১১ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন আগামী ৫ জানুয়ারী- গড়াই সভ্যতা

কুয়াকাটা যেতে আর ফেরি পার হতে হবে না, পায়রা সেতুর উদ্বোধন- গড়াই সভ্যতা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১
  • ৯০ বার পঠিত

অবশেষে উদ্‌বোধন হতে যাচ্ছে পটুয়াখালীর দুমকী উপজেলার লেবুখালী ইউনিয়নের পায়রা নদীর ওপর নির্মিত চার লেনবিশিষ্ট পায়রা সেতু। আজ এই সেতু চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে। এ জন্য বরিশাল থেকে কুয়াকাটা যাওয়ার পথে আর ফেরিতে নদী পার হতে হবে না কোনও যানবাহনকে।

আজ রোববার (২৪ অক্টোবর) সকালে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এই সেতু উদ্‌বোধন করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা এই সেতুটির দ্বার উন্মুক্ত হলে দক্ষিণাঞ্চলে নিরবচ্ছিন্ন যাতায়াতের পথ খুলে যাবে। এ ছাড়া কুয়াকাটাসহ পুরো দক্ষিণ উপকূলের অর্থনৈতিক উন্নয়নে দেশ এগিয়ে যাবে আরেক ধাপ।

ঢাকা থেকে পটুয়াখালীর কুয়াকাটা যেতে একসময় ১০টি জায়গায় নদী পার হতে হতো ফেরিতে। বরিশাল থেকে কুয়াকাটা পর্যন্ত ছিল ছয়টি ফেরি পারাপারের পথ। আর ঢাকা থেকে মাওয়া হয়ে বরিশাল পর্যন্ত ছিল চারটি ফেরি পারাপারের পথ।

সব জায়গায় সেতু হওয়ার পর বাকি ছিল শুধু লেবুখালী ও পদ্মা। লেবুখালীতে আজ সেতু উদ্বোধন হচ্ছে। এদিকে পদ্মা সেতুর কাজ শেষের পর্যায়ে। আগামী জুনের মধ্যে পদ্মা সেতুও যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়ার চিন্তা করছে সরকার।

পরিবহন খাতসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, পদ্মা সেতু চালু হলে ঢাকা থেকে কুয়াকাটা যেতেও আর কোনও ফেরি পারাপারের প্রয়োজন পড়বে না। এতে ঢাকা থেকে কুয়াকাটা যেতে সময় লাগবে মাত্র ছয় থেকে সাত ঘণ্টা।

লেবুখালীর পর পদ্মা সেতুও চালু হলে কুয়াকাটায় পর্যটকের সংখ্যা আরও বাড়বে, পায়রা বন্দরের গুরুত্ব বেড়ে যাবে এবং ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়বে বলে আশা করছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

এদিকে, উদ্‌বোধনের তারিখ ঘোষণার পরই সাজ সাজ রব পড়ে যায় পায়রা সেতু এলাকায়। দৃষ্টিনন্দন এই সেতু দেখতে ভিড় বাড়ছে মানুষের। সন্ধ্যায় ঝলমলে আলোয় আলোকিত হয়ে উঠছে সেতুটি। পায়রা সেতু উন্মুক্ত হলে বরিশাল থেকে কুয়াকাটা পর্যন্ত ফেরিবিহীন যান চলাচল শুরু হবে। পরবর্তী সময়ে পদ্মাসেতুর নির্মাণকাজ শেষ হলে ঢাকা থেকে কুয়াকাটা পর্যন্ত নিরবচ্ছিন্ন সড়ক যোগাযোগ স্থাপিত হবে। পায়রা সমুদ্রবন্দর, তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র, পর্যটনকেন্দ্র কুয়াকাটাসহ দক্ষিণাঞ্চলের মানুষে আর্থসামাজিক উন্নয়নসহ দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে এই পায়রা সেতু।

পায়রা সেতু প্রকল্পের কর্মকর্তারা বলছেন, এই সেতু নির্মাণের নকশা কিছুটা ব্যতিক্রমধর্মী। চার লেনবিশিষ্ট এই সেতুটি নির্মাণ হয়েছে ‘এক্সট্রাডোজড কেব্‌ল স্টেইড’ প্রযুক্তিতে। এক হাজার ৪৭০ মিটার দৈর্ঘ্য এবং ১৯ দশমিক ৭৬ মিটার প্রস্থের এই সেতু কেবল দিয়ে দুই পাশে সংযুক্ত রয়েছে। নদীর মাঝখানে একটি পিলার রয়েছে, এতে নদীর স্বাভাবিক গতিপ্রবাহ ঠিক থাকবে। সেতুটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে এক হাজার ৪৪৭ কোটি টাকা।

২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পায়রা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন। আজ তিনিই উদ্বোধন করেছেন এই সেতু।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2019 daily gorai
Theme Customized BY LatestNews