1. admin@dailygoraishobvotha.com : dailygorai : Salim Takku
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কুষ্টিয়ায় সাব রেজিস্ট্রার হত্যা মামলায় ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড ১ জনের যাবজ্জীবন- গড়াই সভ্যতা তালেবানদের লক্ষ্য করে সিরিজ হামলা, নিহত ৩- গড়াই সভ্যতা কুষ্টিয়া গড়াই নদীতে ধরা পরলো রাসেলস ভাইপার, ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা- গড়াই সভ্যতা নেচে-গেয়ে মরদেহ দাফন: সেই ভণ্ডপীর শামীম কারাগারে- গড়াই সভ্যতা নোয়াখালীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে একই বাড়ির ৪ জনের মৃত্যু-গড়াই সভ্যতা আবরার হত্যা: ২২ আসামী নির্দোষ – গড়াই সভ্যতা টিকা নিশ্চিত হলেই খুলবে ইবি’- গড়াই সভ্যতা ১০-১২ নভেম্বর শুরু হতে পারে এসএসসি- গড়াই সভ্যতা নিজ অস্ত্রের গুলিতে র‍্যাব সদস্যের মৃত্যু- গড়াই সভ্যতা যেসব শিক্ষকের তালিকা চেয়েছে সরকার- গড়াই সভ্যতা

স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সামনে বড় বিপদ: বিশেষজ্ঞদের মতামত-গড়াই সভ্যতা

গড়াই সভ্যতা ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১১ আগস্ট, ২০২১
  • ৪৮ বার পঠিত

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় এখন কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সামনে বড় বিপদের শঙ্কা রয়েছে বলে জানিয়েছে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছে করোনাভাইরাসের এই ঊর্ধ্বগতির মধ্যে লকডাউন শিথিল করে দেওয়া ঠিক হয়নি।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) ঢাকার প্রবেশমুখ গাবতলী, বছিলা, বাবুবাজার, শ্যামপুর, উত্তরা-আব্দুল্লাপুর, সায়েদাবাদ-যাত্রাবাড়ী, সুলতানা কামাল সেতু, পূর্বাচল ৩০০ ফুট সড়কসহ বিভিন্ন যানবাহনে চড়ে লোকজনকে ঢাকায় প্রবেশ করতে দেখা গেছে।

২৩ জুলাই সকাল ৬টা থেকে ১৪ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ জারি করে সরকার। তখন ২৩টি শর্ত দেওয়া হয়। সেই বিধিনিষেধের মেয়াদ ৫ আগস্ট রাত ১২টায় শেষ হয়। পরে সব শিল্প-কারখানা খুলে দিয়ে ও অভ্যন্তরীণ বিমান চালু রেখে ওই বিধিনিষেধের মেয়াদ পাঁচদিন বাড়ানো হয়। মঙ্গলবার রাত ১২টায় সেই বিধিনিষেধ শেষ হয়।

বিআরটিএ বলেছে, গণপরিবহণের যাত্রী, চালক, সুপারভাইজার ও কন্ডাক্টর, চালকের সহকারী এবং টিকিট বিক্রির কাজে জড়িত প্রত্যেককে মাস্ক পরতে হবে। রাখতে হবে প্রয়োজনীয় হ্যান্ড স্যানিটাইজার। যাত্রার শুরু এবং শেষে যানবাহন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার পাশাপাশি জীবাণুনাশক দিয়ে যানবাহন জীবাণুমুক্ত করতে হবে। এর বাইরে সরকার ঘোষিত অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিবহণ চালাতে হবে।

রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) উপদেষ্টা ড. মুশতাক হোসেন বলেন, আমাদের দেশের সামাজিক সুরক্ষা ব্যবস্থাপনা দুর্বল হওয়ায় জীবন ও জীবিকার তাগিদে সরকারকে অনেক কিছু করতে হচ্ছে। দেশে করোনা পরিস্থিতি বিপদসীমার ওপরে অবস্থান করছে। পানি মাথার এক হাত ওপর দিয়ে যাওয়া এবং ১০ হাত ওপর দিয়ে যাওয়া একই কথা। পরিস্থিতি বিপদসীমার নিচে না আসা পর্যন্ত সতর্কতার ক্ষেত্রে কোনো ত্রুটি করলে পরিস্থিতি যে আরও খারাপ হবে, এটা বলার অপেক্ষা রাখে না।

তিনি বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে আনতে রোগী শনাক্ত করে আইসোলেশন নিশ্চিত এবং টেলিমেডিসিন সেবা কার্যকর করতে হবে। তাহলে সংক্রমণ অনেকাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব। পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি ও টিকা নিশ্চিত করতে হবে।

জানতে চাইলে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. মোজাহেরুল ইসলাম বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে সরকার ঘোষিত লকডাউন থেকে কার্যকর সুফল মিলেনি। এখন গণটিকা কার্যক্রম চলছে। এটা ইতিবাচক হলেও শৃঙ্খলা রক্ষা করা সম্ভব হচ্ছে না। গণটিকা দান কর্মসূচি সফল না হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা কঠিন হবে।

তিনি বলেন, জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে বিধিনিষেধ শিথিল করার যৌক্তিকতা রয়েছে। তবে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে বিশেষ গুরুত্বারোপ করতে হবে। বাস, লঞ্চ, ট্রেন, বাজার, শপিংমল, হোটেল-রেস্টুরেন্ট এবং বাজারগুলো যাতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে সে ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2019 daily gorai
Theme Customized BY LatestNews